বাস্তু মেনে বাড়ি বা ফ্ল্যাট তৈরি কি না, কেনার সময় দেখে নিন

বাস্তু – মধ্যবিত্ত ফ্যামিলির কাছে কষ্ট করে জমানো টাকায় বা ব্যাঙ্ক লোণ করে কেনা একটুকরো জমি বা একটা বাড়ি বা ফ্ল্যাট হল একটা বড় অ্যাচিভমেন্ট। আমরা সাধারনত জমি, বাড়ি বা ফ্ল্যাট কেনার আগে ব্রোকার ও তারপর উকিলের শরনাপন্ন হই। খুব কম লোকরাই যাই একজন বাস্তুবিদের কাছে। যদিও আগের থেকে বেশি অনেক লোকরাই এখন বাস্তু মেনে স্বপ্নের ঘর বানানোর চেষ্টা করছেন।

সাধারনত বাস্তু শাস্ত্র অনুযায়ী জমি, বাড়ি বা ফ্ল্যাট এর বিভিন্ন রুম, প্রবেশদ্বার, সিঁড়ি ইত্যাদি কোনদিকে হওয়া উচিৎ তা জেনে নিন।

জমির আকার

বর্গাকার বা আয়তাকার জমি সবথেকে ভালো।

প্রধান দরজা বা গেট

পূর্ব বা উত্তর দিকে প্রধান প্রবেশদ্বার উত্তম।

খোলা জায়গা বা উঠোন

অন্যান্য দিকের থেকে উত্তর ও পূর্ব দিক বেশি ফাঁকা জায়গা ভালো।

সিঁড়ির ঘোরার দিক ও সংখ্যা

সাধারনত ডান হাত রেলিং এ দিয়ে ওঠা সিঁড়ি ভালো আর স্টেপ ১১, ১৭ ইত্যাদি ভালো।

লিফট

লিফট এর জন্য ভালো জায়গা দক্ষিণ বা দক্ষিণ পশ্চিম দিক।

ট্যাঙ্ক

ওভারহেড জলের ট্যাঙ্ক বিল্ডিং এর সবথেকে উঁচু জায়গায় ও দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে ভালো।
সেপটিক ট্যাঙ্ক উত্তর বা উত্তর-পশ্চিম দিকে মাটির নিচে করা ভালো।

বৈদ্যুতিক মিটার ঘর

দক্ষিণ-পূর্ব দিক মিটার ঘরের জন্য উপযুক্ত তবে দক্ষিণ বা উত্তর-পশ্চিম দিকে করা যায়।

গ্যারেজ

গ্যারেজের জন্য উপযুক্ত জায়গা হল উত্তর-পশ্চিম বা দক্ষিণ-পূর্ব দিক।

শোবার ঘর

দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে গৃহকর্তার জন্য ভালো।ছেলেদের জন্য দক্ষিণ-পূর্ব, মেয়েদের জন্য উত্তর-পশ্চিম ও বয়স্কদের জন্য উত্তর-পূর্ব দিক আদর্শ।দক্ষিণ দিকে মাথা করে শোয়া উচিত।

বসার ঘর

পূর্ব বা উত্তর-পশ্চিম দিক বসার ঘরের জন্য ভালো জায়গা।

শৌচাগার

উত্তর-পশ্চিম, পশ্চিম ও দক্ষিণ দিকে শৌচাগার করার জন্য উপযুক্ত।

রান্নাঘর

দক্ষিণ-পূর্ব দিক, অর্থাৎ অগ্নিকোণ হল রান্নাঘরের জন্য আদর্শ।।এইদিকে সম্ভব না হলে উত্তর-পশ্চিম দিকে করা যায়।

খাবার ঘর

রান্নাঘরের কাছাকাছি খাবার ঘর হলে সুবিধা, সেই মতো পূর্ব বা পশ্চিম দিকে করা ভালো।

পড়ার ঘর

উত্তর পূর্ব বা উত্তর-পশ্চিম কোনে পরার ঘর করা যায়।পূর্ব মুখী হয়ে বসে পরা ভালো।

অতিথিদের ঘর

দক্ষিণ বা উত্তর পূর্ব দিক অতিথিদের থাকার জন্য ভালো।

ঠাকুর ঘর

উত্তর-পূর্ব দিক অর্থাৎ ঈশানকোণ ঠাকুর ঘরের জন্য আদর্শ।

ঝুল বারন্দা

ঝুল বারান্দার জন্য আদর্শ স্থান উত্তর-পূর্ব দিকে।

কাজের লোকের ঘর

দক্ষিণ-পূর্ব বা উত্তর-পশ্চিম দিক কাজের লোক থাকার ঘর করা যেতে পারে।

বাস্তু দোষ কি ?

উপরের যে সমস্ত দিক বা জায়গার কথা লেখা সেগুলি সব ক্ষেত্রে মেনে করা সম্ভব হয়নি বা তৈরি করা বাড়ি বা ফ্লাট কিনলে দেখা যায় সেখানে অবস্থান অনেক পরিবরতন আছে সেগুলিই বাস্তুদোষ বলে মনে করা হয় সাধারনত।


বাস্তুদোষ এর প্রতিকার

আইনগত বা বিভিন্ন রীতিনীতি মানতে গিয়ে দেখা যায় সব সময় বাস্তু হিসাবে ঠিকঠাক করা জায় না। সে ক্ষেত্রে বাস্তুদোষ কাটানোর বিভিন্ন উপায় থাকে। বাস্তুবিদদের সাথে আলোচনা করে অনেক ক্ষেত্রে বাড়ি না ভেঙ্গেও বিভিন্ন উপায়ে প্রতিকার করা সম্ভব

আপনার রাশি, গ্রহ, চক্র ইত্যাদি অনেক কিছুর উপর নির্ভর করে আপনার বাড়ির বা ফ্ল্যাটের বিভিন্ন অবস্থান, তাই অবশ্যই প্ল্যান করার সময় বাস্তুবিদের পরামর্শ অনুযায়ী করা ভালো।
সংগৃহীত

ফ্ল্যাট কেনার আগে জেনে নিন বিভিন্ন খুটিনাটি

10 Ways to Stay Safe from Electrical Hazard at Home

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x